শিল্প নিয়ে অনুশ্রুতি ১ম খন্ড

অনুশ্রুতির ১ম খন্ডে “শিল্প” শিরোনামে পৃষ্ঠা ১২৫ – ১২৬ পর্যন্ত মোট ১২ টি বাণী রয়েছে। বাণীসমূহ নিচে দেয়া হলো।

শ্রম ক'রে আয় যে-জন ধরে
সম্পদ তা'রে সেবা করে । ১।
খেটে-খুটে দিলে আয়
তবেই মানুষ অর্থ পায়। ২।
বিনিময়ে আয়ের অর্থ 
যা' করবি তা'য় নিজের স্বত্ব । ৩।
আয় যা' করিস্ তা'র বদলে 
কিনলে জানিস্ নিজের বলে । ৪।
কাজ না ক'রে যে-জন পায়
সেই পাওয়াতেই তা'রে খায়। ৫।
আয়ে খাটিয়ে দেয় না
লক্ষ্মীরে সে পায় না। ৬।
খাটে-খোটে লোকসান
মন্দ বুদ্ধি নিছক জান । ৭।
দেয় না আয়, কেবল চায়,
শয়তানী তা'র পায়-পায়। ৮।
নাইকো কাজে, কেবল কথা—
সন্দেহের সে, অপহতা । ৯।
শিল্প যদি সেবায় ভুলে
না করে সেবায় আহরণ,
উন্নত চালে চলতে পারে
না পায় এমন সংরক্ষণ
লাগোয়াবুদ্ধি একটু ক'রেই
অমনি যদি হাঁপিয়ে যায়,
শিল্প সেথায় করবে কি রে?
অবশ মাথায় মুষড়ে যায় । ১০।
শিল্পী মাথা শিল্পঘরে
তবেই দেশে লক্ষ্মী ধরে । ১১।
ইষ্টানুগ সেবাবুদ্ধিই
শিল্প গড়তে পারে,
এই সেবাতে কী যে না হয়
তা' কে বলতে পারে । ১২।