অহংকে শক্ত করা …. জানা।-ব্যাখ্যা

সত্যানুসরণ-এ থাকা শ্রীশ্রীঠাকুরের বাণীটি হলো:

অহংকে শক্ত করা মানেই অন্যকে না-জানা।

পরমপূজ্যপাদ শ্রীশ্রীবড়দা কর্তৃক ব্যাখ্যা :

শ্রীশ্রীপিতৃদেব—আমির যে-বোধ সেটাই self (অহং)। যখন নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত তখনই অন্যকে জানা যায় না। (হরিপদদাকে) যা’ নিয়ে আমি, তাকে ignore (অবহেলা) ক’রে যাচ্ছি; তাতে কী হয়?

হরিপদদা—অহংকে শক্ত করা হয়।

শ্রীশ্রীপিতৃদেব—অন্যের ওপর depend (ভরসা) ক’রেই তো আমি। অন্যকে না জানলে নিজেকেও জানা যায় না। অহংকে শক্ত করা মানে নিজেকে না জানা—সেটা কি-রকম, অমূল্য বল্‌।

অমূল্যদা (রায়)—ননীদা যা’ বলেন আমি যদি না শুনতে চাই তাতে অহংকে শক্ত করা হয়।

শ্রীশ্রীপিতৃদেব—আমি আছি তো? এ-ছাড়া ইষ্ট আছেন, আমার পরিবেশ আছে। পরিবেশকে যত জানতে-বুঝতে চেষ্টা করি ততই আস্তে-আস্তে মন কারণমুখী হয়। এজন্য অহংকে শক্ত করতে হয় না। (ক্ষণিক থেমে) যার ওপর আমি প্রতিষ্ঠিত তাকে যদি ignore করি, যিনি সব-কিছুর মালিক তাকেও জানতে পারি না, পরিবেশকেও জানতে পারি না। পাতলা অহং থাকলে বোধ বাড়তে-বাড়তে যায়— ক্রমশঃ সব জানা যায়। অহং শক্ত হ’লে জানতে পারা যায় না।

[ ইষ্ট-প্রসঙ্গে/তাং-২৫/১০/৭৫ ইং]

[প্রসঙ্গঃ সত্যানুসরণ পৃষ্ঠা ৩২০]