কপটাশয়ের মুখের কথার …. হয় না। – ব্যাখ্যা

সত্যানুসরণ -এ থাকা শ্রীশ্রীঠাকুরের বাণীটি হলো:

কপটাশয়ের মুখের কথার সঙ্গে অন্তরের ভাব বিকশিত হয় না, তাই আনন্দের কথাতেও মুখে নীরসতার চিহ্ন দৃষ্ট হয়; কারণ, মুখ খুললে কী হয়, হৃদয়ে ভাবের স্ফূর্ত্তি হয় না।

পরমপূজ্যপাদ শ্রীশ্রীবড়দা কর্তৃক ব্যাখ্যা :

ইষ্টরঞ্জন—কপট সেই যে মুখে বলে এক, ভাবে আর এক, বাস্তবে করে না। “উষা নিশায় মন্ত্র সাধন/চলা ফেরায় জপ” …। ঠাকুরের এই বাণী আমি চর্চা করি না অথচ যদি মুখে বলি তবে সেটার ভাব আনন্দের হয় না।

শ্রীশ্রীবড়দা—বাস্তবে করে যে তার বলার ভাব মুখে প্রকাশ পায়।

[‘যামিনীকান্ত রায়চৌধুরীর দিনলিপি/তাং-২/৫/৭৯]

[প্রসঙ্গঃ সত্যানুসরণ পৃষ্ঠা ৩১]

[ কপটতা বা কপট ব্যক্তির উপরে অন্য বাণীগুলো (ব্যাখ্যা সহ) দেখুন]