পরনিন্দা করাই …. সুখ্যাতি …. পড়ে! – ব্যাখ্যা

সত্যানুসরণ -এ থাকা শ্রীশ্রীঠাকুরের বাণীটি হলো:

“পরনিন্দা করাই পরের দোষ কুড়িয়ে নিয়ে নিজে কলঙ্কিত হওয়া; আর, পরের সুখ্যাতি করা অভ্যাসে নিজের স্বভাব অজ্ঞাতসারে ভাল হ’য়ে পড়ে!”

পরমপূজ্যপাদ শ্রীশ্রীবড়দা কর্তৃক ব্যাখ্যা :

নিত্য—অজ্ঞাতসারে ভাল হয়ে পড়ে কেমন করে?

শ্রীশ্রীবড়দা—ধর, আমার পাহাড় মুলুকে বাস করা অভ্যাস। পাহাড় দেখেছিস? উঁচু-নীচু। চলতে চলতে শেষে উঁচু নীচু বোধ থাকে না। আমারও আবার ছেলেবেলায় সরু আলের উপর দিয়ে সাইকেল নিয়ে চলে যেতাম। আমার বাড়িতে চেঁচামেচি করার অভ্যাস। কিন্তু বাইরে আস্তে আস্তে কথা বলি। ওটা অভ্যাস। স্কুলের একটা মেয়ে tiffin খাওয়ার সময় অপরের দেখে অভ্যাস করল। প্রথম প্রথম অসময়ে খেত। পরে সময়মত খেত। কুতুন আসলো বিলাত থেকে, ও তো আগে আমার থেকে চেঁচিয়ে কথা বলত। কিন্তু ও এখন অভ্যাস করেছে, ছোট ছোট আস্তে আস্তে করে কথা বলছে। ওদেশে থেকে amendment করেছে। যেমন সদাটার পালন। যে environment এ থেকে চলা ফেরা করে সেখানে সে পেচ্ছাপ করার সময় জল নেয়। সদাচার যা আগে পালন করত না, এখন তা করছে।

[যামিনীকান্ত রায়টৌধুরীর দিনলিপি/তাং-২২/৭/৭১ ইং ]

[প্রসঙ্গঃ সত্যানুসরণ পৃষ্ঠা ৪১]

এই বাণীর পরিপ্রেক্ষিতে আপনি আরো পড়তে পারেন

১. স্কুলের একটি মেয়ের টিফিন খাওয়া অভ্যাস পরিবর্তনের গল্প।

২. অন্যের দোষ ধরা, পরনিন্দা, খোসামোদ বিষয়ে সত্যানুসরণের পৃষ্ঠা নং ১৪, ১৫ এর বাণীগুলো (ব্যাখ্যাসহ)