প্রেমের মোহ… – ব্যাখ্যা

সত্যানুসরণ-এ থাকা শ্রীশ্রীঠাকুরের বাণীটি হলো:

প্রেমের মোহ—বাধা পেলেই বৃদ্ধি, প্রেমাস্পদের অত্যাচারেও ঘৃণা আসে না, বিচ্ছেদে সতেজ হয়, মানুষকে মূঢ় করে না, চিরদিন অতৃপ্তি, একবার স্পর্শ ক’রলে আর ত্যাগ হয় না—অপরিবর্ত্তনীয়।

পরমপূজ্যপাদ শ্রীশ্রীবড়দা কর্তৃক ব্যাখ্যা :

শ্যামাপদ সৎপতি আলোচনা করার নির্দেশ পেয়ে বলল—ভক্তির গাঢ়ত্বই প্রেম। আমার প্রকৃত ভালবাসা যদি থাকে তাহলে ন্যায়ে বা অন্যায়ে বকলেও তা কেটে যাবে না বরং বেড়ে যাবে। যত বিচ্ছেদ তত সতেজ হবে।

শ্রীশ্রীপিতৃদেব—হয়তো প্রেমাস্পদকে ছেড়ে বাড়ি চলে গেল রাগে। (আশ্রমে) থাকার বাড়ি দিলেন না, কিছুই না! কিন্তু বাড়িতে গিয়ে থাকতে পারল না। কয়দিন পরই ছুটে চলে এল। এসে বলল—আপনাকে ছেড়ে থাকতে পারলাম না। আরও সতেজ হয়ে গেল। মূঢ় মানে অজ্ঞ। সে অজ্ঞ হয় না। আর চিরদিন অতৃপ্তি। অতৃপ্তি কিরকম?—ঠাকুরের জন্য যত করা যায় তার শেষ নাই। যত করা যায় তত আরও করতে ইচ্ছা হয়। নিষ্ঠার সঙ্গে লেগে থাকতে হয়। Whole-time worker (সর্বকালীন কর্মী) হওয়া যায়।—কী স্পৰ্শ করলে ত্যাগ হয় না?—কিসের স্পর্শ?

শ্যামাপদ—প্রেমের মোহ।

শ্রীশ্রীপিতৃদেব—হ্যাঁ। ঠিক-ঠিক। প্রেমের মোহ একবার স্পর্শ করলে আর ত্যাগ হয় না।

[ পিতৃদেবের চরণপ্রান্তে/তাং-৫/৪/৮০ ইং ]

[প্রসঙ্গঃ সত্যানুসরণ পৃষ্ঠা ২৮৭]