ভগবানকে জানা …জানা।-ব্যাখ্যা

সত্যানুসরণ-এ থাকা শ্রীশ্রীঠাকুরের বাণীটি হলো:

ভগবানকে জানা মানেই সমস্তটাকে বুঝা বা জানা।

পরমপূজ্যপাদ শ্রীশ্রীবড়দা কর্তৃক ব্যাখ্যা :

হরিপদদা—জানা-ভালবাসা-কর্ম-ভগবানের ভিতর সহজ ভাবে উৎসারিত। তাই তাঁকে জানলে জানবার আর বাকী থাকে না।

যামিনী—জানা মানে কি?

হরিপদদা—অনুসরণের ভেতর দিয়ে পাওয়া, অনুভূতির ভেতর দিয়ে জানতে হয়।

যামিনী—সমস্তটা কি?

হরিপদদা—জগতের সমস্ত ঐশ্বর্য্য।

সতীশদা—সমস্তর মধ্যে কি সব আছে?

হরিপদদা—সব। ভগবানকে জানতে পারলেই সব জানা যাবে।

সতীশদা—ভগবানকে জানা যাবে কি করে?

শ্রীশ্রীবড়দা—ইষ্টের শরণাপন্ন হয়ে অচ্যুত নিষ্ঠা-আনুগত্য-কৃতিসম্বেগ নিয়ে যে চলে, সেই জানতে পারে।

গুরুকিংকরদা—তার লক্ষণ কি?

শ্রীকন্ঠদা—সমস্ত বৃত্তি-প্রবৃত্তি তাঁরই জন্য নিয়োজিত হয়ে থাকবে।

শ্রীশ্রীবড়দা—তাঁর সঙ্গ, সেবা, সাহচর্য্য করলে বোঝা যাবে বৃত্তিভেদী টান হয়েছে।

অরূপ হালদার—সবাই কি ভগবানকে জানবে?

গুরুকিঙ্করদা—কেউ কেউ জানবে—যারা ভাগ্য করে এসেছে।

শ্রীশ্রীবড়দা—শ্রীকৃষ্ণ বলেছেন, লক্ষ কোটী জীবন আর জগৎ জেনে কি করবে? আমাকে জানো। “To know is to be And to be is to have.”

[‘যামিনীকান্ত রায়চৌধুরীর দিনলিপি/তাং-১৪/১০/৭৫ ইং]