যখনই দেখবে, মানুষ তোমাকে প্রণাম … যাবে। -ব্যাখ্যা

সত্যানুসরণ-এ থাকা শ্রীশ্রীঠাকুরের বাণীটি হলো:

যখনই দেখবে, মানুষ তোমাকে প্রণাম ক’রছে আর তাতে তোমার বিশেষ কোন আপত্তি হ’চ্ছে না, মৌখিক এক-একবার আপত্তি ক’রছ বটে—মনে বিশেষ একটা কিছু হ’চ্ছে না—তখনই ঠিক জেনো, অন্তরে চোরের মত হামবড়াই ঢুকেছে ; তুমি যত শীঘ্র পার, সাবধান হও, নতুবা নিশ্চয়ই অধঃপাতে যাবে।

পরমপূজ্যপাদ শ্রীশ্রীবড়দা কর্তৃক ব্যাখ্যা :

শ্রীশ্রীপিতৃদেব কৃষ্ণা দাসকে আলোচনা করতে আদেশ করলেন।

তার বলায় বিষয়টি পরিষ্কার না হওয়ায় শ্রীশ্রীপিতৃদেব বললেন—আমাদের দেশে প্রণাম করার রীতি আছে। ছোট যারা তারা বড়দের প্রণাম করে। বাবাকে, মাকে, অন্যান্য গুরুজনদের প্রণাম করি। আমাদের দেশে বড়দের শ্রদ্ধা-ভক্তি প্রদর্শন করার রীতি আছে। এছাড়া সমাজে বিভিন্ন কাজে মানুষের সাথে মিশতে থাকি।

আমরা ঠাকুরের আদর্শ ধরে চলছি, এই পথে আরও বহু মানুষ আসছে। আদর্শের পথ ধরে চলতে চলতে লোকে আমাকেও উচ্চ ও উদার ভেবে প্রণাম করবে। কারণ অনেকদিন ধরে যজন-যাজনের কাজে থাকার দরুণ বহু পরিচিতি হয়েছে। তখন যদি মনে হয় আমি কিছু হয়ে উঠেছি—অহংকার আসবে। এই অহংকারকে প্রশ্রয় দিলে কী হবে? তখন অধঃপতন আসবে। অধঃ মানে নীচে। মানে আমার উন্নতির পথ রুদ্ধ হয়ে যাবে। অহংকারকে প্রশ্রয় দিতে নেই। প্রণাম যত না নেওয়া যায় ততই মঙ্গল।

[ ইষ্ট-প্রসঙ্গে/তাং-২৩/৯/৭৬ ইং]

[প্রসঙ্গঃ সত্যানুসরণ পৃষ্ঠা ২৭০]