সৎ-চালক পাতলা অহংযুক্ত…-ব্যাখ্যা

সত্যানুসরণ-এ থাকা শ্রীশ্রীঠাকুরের বাণীটি হলো:

 “সৎ-চালক পাতলা-অহংযুক্ত ; তিনি নিজে তাঁর ক্ষমতা কিছুতেই তোমার নিকট জাহির ক’রবেন না এবং সেইজন্য তোমার ভাবানুযায়ী তোমাকে অনুসরণ ক’রবেন—আর, এ-ই সৎ-চালকের স্বভাব। যদি সৎ-চালক অবলম্বন ক’রে থাক, যা’ই কর, ভয় নাই, ম’রবে না; কিন্তু কষ্টের জন্য রাজী থেকো।

পরমপূজ্যপাদ শ্রীশ্রীবড়দা কর্তৃক ব্যাখ্যা :

বিনোদবিহারী মৃধা আলোচনা করার নির্দেশ পেয়ে বললেন—সৎ এসেছে অস্ ধাতু থেকে অর্থাৎ যার অস্তিত্ব, বিদ্যমানতা আছে। মানে আগে ছিলেন, এখন আছে, পরে থাকবেন। আর তিনিই সদগুরু, তিনিই ভগবান, তিনিই ঈশ্বর। তাঁর ভাব—পরমপিতার ইচ্ছায় সব হয়। “আমি” ভাবটা তাঁর নেই। তিনি তাঁর ক্ষমতা কখনই নিজে প্রকাশ করবেন না। আমি যদি তাঁকে অনুসরণ করি, অনুসরণের মাধ্যমে তাঁর কাছে নিজেকে যেমন প্রকাশ করব, তিনি সেইভাবে আমাকে চালনা করবেন। আর এতে ঘাত-প্রতিঘাত আসবে, তাতে যেন মূষড়ে না পড়ি।

শ্রীশ্রীপিতৃদেব—বিশ্বাসের মূর্ত্ত-প্রতীক কে?

বিনোদদা—সদগুরু।

শ্রীশ্রীপিতৃদেব—চালক যে তাকে leader (নেতা) বলি, এখানে সদগুরু।

[পিতৃদেবের চরণপ্রান্তে/তাং-১৭/৯/৭৯ ইং]

[প্রসঙ্গঃ সত্যানুসরণ পৃষ্ঠা ১৫০]