ধীর, ক্ষীপ্র, বীর, স্থিরপ্রতিজ্ঞ, সহানুভূতি, প্রশংসা

ধীর, ক্ষীপ্র, বীর, স্থিরপ্রতিজ্ঞ, সহানুভূতি, প্রশংসা সম্বন্ধে শ্রীশ্রীঠাকুর সত্যানুসরণের ২২, ২৩ পৃষ্ঠায় বলেছেন….

ধীর হও, তাই ব’লে আলসে, দীর্ঘসূত্রী হ’য়ে প’ড় না। 

[উপরের “ধীর হও….না” বাণীটির ব্যাখ্যা]

ক্ষিপ্র হও, কিন্তু অধীর হ’য়ে বিরক্তিকে ডেকে এনে সব নষ্ট ক’রে ফেলো না।

[উপরের “ক্ষিপ্র…না” বাণীটির ব্যাখ্যা]

বীর হও, কিন্তু হিংস্রক হ’য়ে বাঘ-ভালুক সেজে ব’স না।

[উপরের “বীর হও…না” বাণীটির ব্যাখ্যা]

স্থিরপ্রতিজ্ঞ হও, গোঁয়ার হ’য়ো না। 

[উপরের “স্থিরপ্রতিজ্ঞ…না” বাণীটির ব্যাখ্যা]

তুমি নিজে সহ্য কর, কিন্তু যে পারে না তাকে সাহায্য কর, ঘৃণা ক’রো না, সহানুভূতি দেখাও, সাহস দাও।

[উপরের “তুমি নিজে…সাহস দাও” বাণীটির ব্যাখ্যা]

নিজেকে নিজে প্রশংসা দিতে কৃপণ সাজ, কিন্তু অপরের বেলায় দাতা হও।

Leave a Comment