বিশ্বাস না থাকলে দর্শন হবে কি করে?

সত্যানুসরণ-এ থাকা শ্রীশ্রীঠাকুরের বাণীটি হলো:

বিশ্বাস না থাকলে দর্শন হবে কি করে?

পরমপূজ্যপাদ শ্রীশ্রীবড়দা কর্তৃক ব্যাখ্যা :

সতীশদা—দেখেই তো বিশ্বাস হয়।

শ্রীশ্রীবড়দা—সুধীর আলোচনা করুক। (সুধীরদা চুপ করে আছেন)

মনি রায়—বিশ্বাস হল ভাবের দৃঢ়তা। ইষ্ট-নির্দেশ নিবিষ্টভাবে পালন করলে অনুভূতি হবে।

সতীশদা—দর্শন হবে কি করে?

মনি রায়—ইষ্টনেশায় চলতে চলতে বিশ্বাস আসে। আগেও অনেক দর্শন ঘটত, মনে হ’তো অলৌকিকভাবে এসেছে। যুক্তি তর্কের ওপর যে দর্শন, তা এলোমেলো; বিশ্বাসের উপর দর্শন অটুট।

শ্রীশ্রীবড়দা—অর্জুন শ্রীকৃষ্ণকে জানতেন আত্মীয়, সখা, বন্ধু হিসাবে। কিন্তু অসাধারণ ভাব-এ বিশ্বাস ক’রতে ক’রতে শেষে যুদ্ধক্ষেত্রে বিশ্বরূপ দর্শন পেলেন।

ননীদা—বিশ্বাসের গভীরতার কথা আছে সেজন্য।

শ্রীশ্রীবড়দা—তিনি যে নারায়ণ। এ বিশ্বাসটা আছে; ক’রতে-ক’রতে এটা বুঝেছে। শেষে, চলতে-চলতে পাকা হ’য়ে গেলে দর্শন হয়।

[‘যামিণীকান্ত রায়চৌধুরীর দিনলিপি/তাং-১৮/৪/৭৪ ইং ]

[প্রসঙ্গঃ সত্যানুসরণ পৃষ্ঠা ১৯৫]