সত্যানুসরণ সম্বন্ধে শ্রীশ্রীঠাকুর

প্রসঙ্গঃ সত্যানুসরণ এর শুরুতে সংযোজিত হয়েছে …..

সত্যানুসরণ সম্বন্ধে কথা উঠল।

শ্রীশ্রীঠাকুর—সত্যানুসরণ আমার হাতের লেখা। প্রথম বই। বই ব’লে তো লিখিছিলাম না। অতুল ভট্টাচার্য ক’ল, আপনার normal experience (স্বাভাবিক রকমে প্রাপ্ত অভিজ্ঞতা) কী, কী, সেগুলি যদি লিখে দেন ।
শরৎদা—সত্যানুসরণ তো আপনার কুড়ি-বাইশ বছরে লেখা। ও বয়সে আপনার এমন কী experience (অভিজ্ঞতা) হয়েছিল?

শ্রীশ্রীঠাকুর—আমার জীবনের তো একটা angle (দৃষ্টিকোণ) ছিল, তা’ দিয়ে বিচার করে যা’ যা’ পাইছি, তাই লিখিছি। ছোটবেলায় আমি মা’র পাছে পাছে ঘুরতাম চক্রবৃদ্ধির মতো। ঐ সবের উপরে দাঁড়ায়েই যা’ হবার তা হইছে। ওই যে একটা পেলাম, Do unto others as you wish to be done by (অপরের প্রতি কর সেই আচরণ, নিজে যাহা পেতে তুমি কর আকিঞ্চন)। অনেকে আমারে মারত। তার থেকেও অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করতাম। আমার education-এর (শিক্ষার) দিককার seed (বীজই) হলো—ওই ‘এক আর এক দুই’ হয় কেমন ক’রে? দু’টো এক হতে পারে। এর মধ্যে দিয়ে সংস্কৃত তো শিখতেই পারলাম না। আমার এইসব experience (অভিজ্ঞতা)গুলিই একেবারে ন্যাংটা।

ইং ২৩-১-১৯৬২
[ দীপরক্ষী, আলোচনা / আষাঢ়, ১৪০৪ বাং ]